প্রিয় গ্রাহক,আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।করোনা ভাইরাস এর লক্ষন গুলো হলো:১) জ্বর 100 ডিগ্রি ফারেনহাইট বা তার বেশি। সাধারণ ভাইরাল ফিভার হলে জ্বর তিন দিনের পর থেকে কমতে থাকবে কিন্তু এই ক্ষেত্রে জ্বর কমবে না।২) গলা ব্যথা ও শুকনো কাশি।৩) কোন কোন ক্ষেত্রে পাতলা পায়খানা থাকতে পারে।৪) শ্বাসকষ্ট অনুভব করা।যদি রোগীর মৃদু উপসর্গ যেমন অল্প জ্বর, অল্প কাশি, গায়ে হালকা ব্যথা, সর্দি, গলা ব্যথা থাকে এবং অন্য কোন বিপদ চিহ্ন যেমন শ্বাসকষ্ট, অতিরিক্ত কফ, কাশির সাথে রক্ত যাওয়া, ডায়রিয়া অথবা বমি বমি ভাব, মানসিক অবস্থার পরিবর্তন- নিস্তেজ হয়ে যাওয়া, ঘোরের মধ্যে থাকা ইত্যাদি না থাকে এবং অন্য কোনো দীর্ঘমেয়াদি শারীরিক জটিলতা যেমন শ্বাসতন্ত্র বা হৃদরোগ এর কোন সমস্যা, দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকা, এই ধরনের সমস্যা যদি না থাকে তবে বাড়িতেই পরিচর্যা করা যেতে পারে।অন্তত 14 দিন বাড়িতেই থাকুন এবং নিম্নোক্ত নিয়মসমূহ মেনে চলুনঃ• কুসুম গরম পানি পান করুন ও গরম পানি দিয়ে গড়গড়া করুন।• বাড়ির অন্যদের থেকে আলাদা থাকুন, অন্তত 3 ফিট বা 1 মিটার দূরত্ব বজায় রাখুন।• দিনে অন্ততঃ দু'বার শরীরের তাপমাত্রা মাপুন।• মাস্ক পড়ুন।• বাড়িতে অতিথিদের আসা বন্ধ করুন।• ঘনঘন সাবান পানি দিয়ে অন্তত 20 সেকেন্ড ভালো করে ফেনা করে হাত ধুবেন।• জ্বর , শরীর ব্যথা বা গলা ব্যথা কমানাের জন্য প্যারাসিটামল খাবেন।• সর্দি-কাশির জন্য এন্টিহিস্টামিন  খেতে পারেন।## সাবান দিয়ে ভালো করে হাত পরিষ্কার না করে হাত দিয়ে নাক, চোখ, মুখ ছােবেন না।জ্বর আসলে নিয়মিত থার্মোমিটার দিয়ে তাপমাত্রা পরিমাপ করতে হবে। যদি নতুন কোন উপসর্গ বা উপসর্গের অবনতি যেমন শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় সে ক্ষেত্রে প্রথমে ১৬২৬৩ , ৩৩৩ এইসব হট লাইনের মাধ্যমে দ্রুত টেলিফোনে যোগাযোগ করতে হবে।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও