নমস্কার আমি তুহীনা মণ্ডল পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা, আমার বয়েস 23, আমি একজন শিক্ষিকা পেশা তে আমার মনে হয় আমি পাগল হয়ে যাচ্ছি! আমি দেখতে মোটামুটি, গায়ের রঙ ফর্সা ও না আবার কালো ও না !5 ft উচ্চতা! তবে সব থেকে বড় সমস্যা আমি খুব রোগা ! আমার পরিবারের আরো অন্যান্য আমার বয়স এর মেয়েরা ফর্সা, সুন্দর, মোটাসোটা! আমার মা মনে করেন আমি হইতো পাপী, খারাপ মানুষ তাই আমি কুৎসিত!ছোট বেলা থেকেই শুনে আসছি আমি কুৎসিত,আমার মা বলেন !আমার সাথে উনি কোথাও যান না,কারণ ওনার লজ্জা লাগে আমার সাথে বেরোতে! আমি খুব চেষ্টা করতাম নিজেকে নিয়ে ভালো থাকার ,ছিলাম ও! কোনোদিন এসব মাথার মধ্যে আস্তে দিয়নি! কিন্তু ইদানিং করোনা ইস্যূ তে স্কুল কলেজ সব বন্ধ ! আমি সারাদিন বাড়িতে ! আমার মা আমাকে মোটেও সহ্য করতে পারছেন না!আমি একটি সম্পর্কে আছি , ছেলেটি বেশ সুন্দর !আমার মা এর কথা অনুযায়ী ছেলেটির আমাকে পছন্দ করার কথা ন য়! আমাকে বার বার বাড়ী থেকে বেরিয়ে যেতে বলা হচ্ছে ! আমাকে বার বার বলা হচ্ছে কুৎসিত হয় এ বেঁচে থাকা উচিত না! অনেক চেষ্টা করেছি নিজেকে শেষ করে দেওয়ার, গলায় দড়ি দিয়ে,হাত কেটে কিন্তু কিছুতেই কিছু হচ্ছে না! আমি বাঁচতে চাই ,আমি সুন্দর হতে  চাই ,আমি শান্তি চাই ! আমাকে সাহায্য করুন !সাহায্য করুন আমাকে!

গ্রাহক,আপনার মনের কথা শেয়ার করার জন্য আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ। আপনার কষ্ট আমি অনুভব করতে পারছি এবং আপনার নিজের প্রতি যে ভালোবাসা, জীবনকে সুন্দর করার চেষ্টা তা অনেক প্রশংসনীয় মনোভাব।শারীরিক গড়ন, রং বা বাহ্যিক সৌন্দর্য আমাদের হাতে নেই তা সৃষ্টীকর্তার প্রদত্ত। আমরা যা পারি তা হচ্ছে নিজের চেষ্টায় প্রতিষ্ঠিত হওয়া, ব্যক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিকভাবে অবদান রাখা এবং পৃথিবীকে কিছু দেওয়া যা আপনি করছেন। আপনি মহৎ পেশায় নিয়োজিত আছেন জানিয়েছেন। আপনি একজন শিক্ষিকা যা আপনার একটি পরিচয়। বাহ্যিক সৌন্দর্য তো কোন পরিচয় বা অর্জন নয় তা প্রাকৃতিকভাবে পাওয়া। কিন্তু আপনি যেখানে নিজেকে নিয়েছেন তা আপনার অর্জন, আপনার আত্নপ্রচেষ্টা।পরিবার বা কাছের মানুষের কাছে প্রতিনিয়ত শারীরিক গড়নের জন্য আপনার যে কথা শুনতে হচ্ছে সত্যি তা গ্রহণ করা কষ্টকর। তারা আপনার মনের অবস্থা বুঝতে চেষ্টা করলে এবং অন্যকে শ্রদ্ধা করার মত জ্ঞান থাকলে হয়তো এ কথাগুলো বলত না। আপনি খুঁজে দেখতে পারেন এমন অসংখ্য নারী আছে যারা বঞ্ছনা সহ্য করেও এগিয়ে গিয়েছে নিজেদের উপর আত্নবিশ্বাস রেখে।যেমন।  এডিথ এজের বলেন -"মানুষ আমাকে মারতে পারবে, অত্যাচার চালাতে পারবে। কিন্তু আমার আত্মা আর এগিয়ে যাবার চেতনা কেউ শেষ করে দিতে পারবে না।"অভিনেত্রী কেলেসি ওকাফর বলছেন যার গায়ের রং কালো , "আমার স্থির বিশ্বাস, আপনাকে আসলে সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে আপনি নিজের জীবন বা সিদ্ধান্ত সম্পর্কে কেমন মনোভাব পোষণ করেন।"মার্কিন লেখক মেশেল লোরি বলছেন,"নিজের ভেতরকার শূণ্যতা পূরণের জন্য সময় দরকার একজন মানুষের, সেই সাথে নিজের কাজকর্ম মূল্যায়নের জন্যেও তো অবসর লাগে।"তাই কে কি বলছে কিছু সময় তা উপেক্ষা করে এগিয়ে যেতে পারলে মনের শান্তি পাওয়া যায়। কারণ তারা আপনাকে জানে না এবং বুঝতে চেষ্টা করছে না। তাই আপনি নিজেকে ভালোবাসে নিজের পরিচয় তৈরি করে শক্ত অবস্থা করে অন্যদের কাছে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেন। আপনি যেমন তেমনি আপনি সুন্দর যদি আপনি নিজেকে ও অন্যকে ভালোবাসেন। আপনার আচরণের মাঝে সৌন্দর্য নিহিত। ধন্যবাদ আপনাকে।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও