গ্রাহক,আপনার মনের কথা শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ। আপনার পারিবারিক/অন্য সমস্যা নেই তবুও মরে যেতে ইচ্ছে করে। বর্তমানে আপনি হতাশ ও ভীতগ্রস্থ, তাই কি?আপনি যে নিজের অনুভূতি ও আচরণ নিয়ে সচেতন এটা অনেক ইতিবাচক মনোভাব। আমার সাথে শেয়ার করা যাবে, আপনার বয়স কত এবং আপনার জীবনে কোন পরিবর্তন এসেছে কিনা বা এমন কোন ঘটনা আছে যা চিন্তা করলে আপনার মৃত্যু চিন্তা হয়? জানতে চাইছি কারণ অনেক সময় বয়ঃসন্ধিকাল/ প্রেগন্যান্সির জন্য হরমোনের পরিবর্তন আসে তখন শারীরিক ও মানসিক চেঞ্জ আসে যার জন্য অনিয়ন্ত্রিত চিন্তা হয় যার ফলে অপ্রত্যাশিত আচরণ করে ফেলি আমরা। সেজন্য আপনার মাঝে কি কারণে এমন হচ্ছে তা যদি স্থির হয়ে ভেবে দেখেন তাহলে আপনার আচরণের কারণ জানতে পারবেন। আর কারণ জানলে সে অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া সহজ হয়। আপনি বর্তমানে নিজেকে স্থির রাখার জন্য কাছের মানুষের সাথে এবং নিরাপদ স্থানে নিজেকে রাখুন যেন অপ্রত্যাশিত আচরণ করা থেকে নিজেকে বিরত রাখতে পারেন।পরিবারের বিশ্বস্ত কেউ থাকলে/ বাবা-মায়ের সাথে আপনার মনের কথা শেয়ার করতে পারেন এতে করে মন হালকা হয় এবং মন শান্ত হতে থাকে। মেডিটেশন করতে পারেন। মেডিটেশন হল এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে শরীরকে শিথিল করে মানসিক ভাবে প্রাশান্তি এনে দেয়। দুচিন্তা,রাগ, আবেগ, হতাশা থেকে কিছুটা মুক্তি পাওয়া যায়। এর মাধ্যমে দীর্ঘ নিঃশ্বাস নেওয়ার ফলে মস্তিস্কে বিশুদ্ধ অক্সিজেন প্রবেশ করে মস্তিস্ককে অনেক শিথিল করে  ফলে আপনার মধ্যে সৃষ্টি হতে পারে ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গী, আত্মবিশ্বাস, মনে সৃষ্টি হবে প্রশান্তি ও নেতিবাচক চিন্তা ভাবনা সহজেই  দূর হয়ে যাবে।  নিচের লিংকের সাহায্য নিতে পারেন মেডিটেশন করার জন্য।https://www.youtube.com/watch?v=JEg5t0WCILQ&feature=shareধন্যবাদ আপনাকে।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও