প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। প্রথমেই আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জানাচ্ছি আমাদের কাছে মানসিক সহায়তা চাওয়ার জন্য। আপনার এই পদক্ষেপ প্রমাণ করে যে আপনি হাল ছেড়ে দেন নাই, আপনি চেষ্টা করছেন নিজেকে সহায়তা করার জন্য। আর কোন পরিস্থিতি থেকে বের হয়ে আসার জন্য এই ইচ্ছা শক্তি ও সচেতনতার জায়গাটি খুবই গুরুত্ব পুর্ন। আমি বুজতে পারছি আপনার পরিস্থিতিটা। আমি অনুভব করতে পারছি আপনার আগ্রহ ও উদ্বেগ এর জায়গাটা। আপনি জানতে চাচ্ছেন কি করলে আপনার পড়াশুনায় মন বসবে। আপনার কি পড়াশুনায় মন বসছে না,  কবে থেকে আপনার এমন মনে হচ্ছে? আপনি কি কোন ধরণের মানুসিক অস্থিরতার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন? কোন কারনে আপনি কি উদ্বেগ বা হতাশা  অনুভব করছেন? ভেবে দেখতে পারেন। আপনি কি পড়াশুনা কারতে চান? কি ভেবে আপনি পড়াশুনা করতে চান? পড়াশুনা করে আপনি কি পেতে চান? পড়াশুনা করলে আপনার কি লাভ হবে? ভেবে দেখতে পারেন। এখন ই আপনার জীবন গড়ার সময়। এই সময়টাকে নষ্ট করলে আপনি আর ফিরে পাবেন কিনা? তখন আপনি কি করবেন ভেবে দেখতে পারেন। আপনার নিজের দায়িত্ব আপনার নিজেকেই নিতে হবে। ভাল করলে সেটা ও আপনার, মন্দ করলে সেটা ও আপনার ই থাকবে। খেয়াল করতে পারেন আপনি কি চান। আপনার চাওয়াটা সব থেকে গুরুত্বপূর্ন। আপনি যদি পড়াশুনা করতে চান মন থেকে, তাহলে আপনি কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে পারেন। ১. আপনি কি কারনে, কার জন্য পড়াশুনা করতে চান সেটা ভেবে দেখতে পারেন। কারণ পড়াশুনা করার সুবিধা গুলো আপনার সামনে থাকলে আপনি পড়াশুনার প্রতি আকর্ষণ অনুভব করবেন। আর আপনি আকর্ষণ অনুভব করলে সেটা আপনাকে আনন্দের অনুভূতি দিবে। ফলে আপনার পক্ষে পড়া শেখা ও মনে রাখা অনেক সহজ হবে। ২. প্রতিদিন একই সময়ে ও একই জায়গায় পড়তে বসতে পারেন। ৩. প্রতিদিনের কাজের একটা রুটিন বা তালিকা তৈরি করতে পারেন। আপনার পড়ার সময় অন্য কাজ ও চিন্তাকে এক পাশে রাখতে পারেন এবং বলতে পারেন এটা পড়ার সময় তোমাদেরকে আমি পরে সময় দিব।  ৪. নিজের উপর অত্ন বিশ্বাস রাখতে পারেন। এর জন্য আপনার মধ্যে কি কি গুনাবলি ও যোগ্যতা আছে সেগুলোকে সামনে রাখতে পারেন। এছাড়া আপনার আগের অর্জন গুলোকে সামনে রাখতে পারেন। কারণ এর আগেও আপনি অনেক কিছু পেরেছেন। নিজের যত্ন নিন, নিজেকে ভাল রাখুন, ভালবাসুন। কারণ আপনার ভাল থাকাটা সব থেকে বেশী গুরুত্ব পুর্ন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও