গ্রাহক কতদিন  ধরে আপনার এই সমস্যা?তলপেটে ব্যাথা আছে কি?জর আছে?ঘন ঘন প্রসাব বা পরিমানে কম প্রসাব হয় কি না? আপনার খুব সম্ভবত প্রসাবে ইনফেকশন হয়েছে।প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি করার প্রধান জীবাণুটি হলো ব্যাকটেরিয়া।তবে ছত্রাক বা ফাঙ্গাস এ ধরনের প্রদাহ ঘটায়। মেয়েদের মূত্রনালী পায়ুপথেরখুব কাছে থাকে বলে সহজেই জীবাণু প্রবেশ করতে পারে।তাই মেয়েদের বেশি হলেও ছেলেদের ও হতে পারে। ই-কলাই নামক জীবাণুশতকরা ৭০-৮০ ভাগ প্রস্রাবের প্রদাহের কারণ।আপনি কিছু পরীক্ষা করে নিশ্চিত হন আসলেই ইনফেক্সন আছে কিনা। যেমন urine rme, cbc test. যদি থাকে সেক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শে মেডিসিন খেতে হবে।আপনি নিচের নিয়মগুল মেনে চলবেন-মদ, ক্যাফেইন, মশলাযুক্ত খাবার এবং এসিড সমৃদ্ধ খাবার বর্জন করুন কেননা এগুলো আপনার পিত্ত থলিকে আরও বেশি সমস্যায় আক্রান্ত করে।দৈনিক আট থেকে দশ গ্লাশ পানি খাবেন যাতে করে আপনার পস্রাবে জমে থাকাব্যাকটেরিয়াগুলো গলে পস্রাব দিয়ে বেরিয়ে আসে। (তবে ডাক্তারের কাছে পরীক্ষার উদ্দেশ্যে যাবার আগে বেশি পানি খাবেন না, নচেৎ আপনার পস্রাবেরব্যাকটেরিয়ার অস্তিত্ব ঠিকমতো উদঘাটন করা সম্ভব হবে না।)একটা গরম কিছু বা হট ওয়াটার ব্যাগ বা বোতল চেপে ধরে ব্যথার স্থানে রাখতে পারেন।যদি পস্রাবের জ্বালাপোড়া থেকে মুক্তির উদ্দেশ্যে দেয়া এন্টিবায়োটিকওষুধগুলো আপনার শরীরে ইস্ট বা ছত্রাকের আক্রমণ ঘটায় সেক্ষেত্রে টক দই খেতেপারেন। টক দইয়ের ব্যাকটেরিয়া ছত্রাকের আক্রমণ প্রতিহত করতে পারে।পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকবেন।সহবাসের পুরবে এবং আগে প্রসাব করে নিবেন।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও