আমার বয়স ২৪,আমি ২০১১ তে SSC পাশ করি।আমি HSC চলাকালীন অবস্থায় বড় বোনের কাছে থাকতাম,মা কাছে থাকতোনা বলে মায়ের সাথে টাকা চাওয়া ছাড়া কোন বিষয়ে কথা বলতাম না।তখন থেকেই একাকীত্ব বোধ টা কাজ করতো।নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ি।ইয়াবা,গাজা,সিগারেট! তবে সিগারেট মোটামুটি রেগুলার খেলেও অন্যগুলো হঠাত খেতাম।এরপর নেশা ছেড়ে দিই,একটা রিলেশনে জড়িয়ে পড়ি।তখন মায়ের কাছেই থাকি।মায়ের সাথে দুরত্ব কমলেও রিলেশনে আমাকে ধোকা দেওয়া হয়।আমি বাচ্চা এবোরশন করি।এরপর থেকেই মানসিক সমস্যায় আরো বেশি ভুগছিলাম কিন্তু গুরুত্ব দেইনি।২০১৬ তে আমি বাসায় না জানিয়ে প্রেম করে বিয়ে করি,তবে ছেলের কিছু প্রব্লেম থাকায় আমার বিয়ের ১.৫ বছরে ডিভোর্স করি।পরে আমার মীমাংসা হয়ে ডিভোর্স ক্যান্সেল করি।এরপর সহ্য করতে না পেরে ২.৫ বছরে তাকে আমি দ্বিতীয়বার ডিভোর্স করি।এর মাঝে সে বেকার ছিল বলে আমি আবারো বাচ্চা এবোরশন করি বাধ্য হয়ে,কারন সে তার বাসায় জানাতে পারতো না।এই বিষয়গুলোর পর আমি আবার রেগুলার সিগারেট খাওয়া শুরু করি এবং সেটা অনেক পরিমানে।বাসা থেকে ২০১৯ এ আমাকে বিয়ে দেয়া হয়।বিয়ের ১মাস ২৬দিনের মাথায় আমার হাজবেন্ড মারা যায়,আমার শ্বশুরবাড়ি থেকে আমার সাথে কেউ যোগাযোগ করেনা।আমি আমার মায়ের কাছে থাকি।এর মাঝে অতিরিক্ত ডিপ্রেশন এর জন্য ডক্টর এর সাথে আলাপ করে ইনডেভার ১০,সেরোলাক্স ৫০ খেতাম।এ বাদে আরেকজন মানসিক ডাক্তার দেখাই তবে তার চিকিৎসা ভালো না লাগায় কন্টিনিউ করিনি,ডক্টর বলেছিল আমার ফোবিয়া আছে।যে কোন কিছু করার আগেই আমি ভয়ে আর সেটা করিনা,যদি সফল না হই ভেবে।সব সময় কনফিউশনে ভুগি।আজকাল আমি অল্পতেই রেগে যাই,কেদে ফেলি।বেশি রাগ হলে বাসা থেকে বেরিয়ে যাই,মরে যেতো  ইচ্ছে করে।আমার ঘুম কম হয়,তবে সবদিনে এক হয় না,শরীর দূর্বল থাকলে ঘুম ভালো হয়।এমনি সময় ঘুম অনেক হালকা,ঘুমের মাঝে একটু শব্দ পেলেই ঘুম থেকে লাফিয়ে উঠি,হার্টবিট বেড়ে যায়।মাঝে মাঝে মনে হয় আমার পাশে দিয়ে কেউ গেল,কিন্তু কেউ যায় না।আমি ভয় পাই অনেক।আমি সরকারি জবের জন্য ট্রাই করছি,মানসিক অবস্থা ভালো না থাকায় পড়তে পারিনা।দয়া করে এটার কোন সলিউশন এবং ওষুধ কি খেতে হবে জানালে অনেক উপকৃত হতাম। বড় করে লেখার জন্য দুঃখিত,এগুলো বিষয়ে কেস স্টাডি করা জরুরি তাই ভেবে লিখলাম।ধন্যবাদ

গ্রাহক,আপনার মনের কথা শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ। আপনার সাথে কথা হয়েছে। আপনার প্রয়োজন অনুযায়ো কাউলেন্সিং সেবার নেওয়ার জন্য ঠিকানা দেওয়া হল।একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ প্রয়োজন। যিনি আপনাকে সহযোগিতা করবে যেন আপনি নিজের এই চিন্তা, অনুভূতি ও আচরণ নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। আপনি ঢাকা বিশেবিদ্যালয়ের এডুকেশনাল ও কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগ বা ক্লিনিক্যাল সাইকোলজি বিভাগে যোগাযোগ করতে পারেন। অথবা স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেড, ফোন নাম্বারঃ ০৮০০০৮৮৮০০০ যোগাযোগ করতে পারেন।ধন্যবাদ আপনাকে।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও