গ্রাহক  পায়খানা কষা খুব কমন একটি সমস্যা। আপনি ডাক্তারের পরামর্শে মেডিসিন খেতে পারেন। তবে সবচেয়ে উত্তম স্বাভাবিক ভাবে কমানোর চেষ্টা করা।  কোষ্ঠকাঠিন্য কমানোর কিছু উপায় ঃ১. আঁশযুক্ত খাবার বেশি খাবেন। আঁশযুক্ত খাবার খেলে মল বাড়ে।  কোষ্ঠকাঠিন্য কমানোর প্রথম ধাপ হলো বেশি করে শাকসবজি-ফলমূল খাওয়া। পাশাপাশি হালকা ব্যায়ামও উপকারী।শাকসবজি, ফল, বিচি জাতীয় খাবারে প্রচুর পরিমাণে আঁশ পাওয়া যায়।২. লেবুলেবু পানি কোষ্ঠকাঠিন্য কমাতে আরেকটি চমৎকার উপায়। তবে কারো কারো ক্ষেত্রে  লেবু পানি গ্যাসের সমস্যা সৃষ্টি করে। লেবুর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি। এক গ্লাস গরম পানিতে চার চা চামচ লেবুর রস দিন। এর মধ্যে সামান্য মধু যোগ করুন। দিনে দুই বার পান করুন।৩. বেশি বেশি তরল খাবারকোষ্ঠকাঠিন্যের সময় প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন। এটি পায়খানা নরম করতে সাহায্য করে। ৪. দুধ ও দুগ্ধজাতীয় খাবারদুধ ও দুগ্ধজাতীয় খাবার কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে থাকে।৫। ইসুবগুলের ভুসিআপনি প্রতিদিন ইসুবগুলের ভুসি খেতে পারেন এতেও আপনার পায়খানা নরম হবে।গ্রাহক, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে আপনার লাইফস্টাইল কিছু পরিবর্তন করুনঃ ১) মলত্যাগের বেগ হোক বা না হোক প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট সময়ে টয়লেটে বসবেন, এতে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ঐ সময়ে মলত্যাগের অভ্যাস গড়ে উঠবে। ২) দুশ্চিন্তামুক্ত থাকুন ৩) সহজপাচ্য ও সাধারণ খাদ্যে অভ্যস্ত হোন ৪) কিছু বর্জনীয় খাবারঃগরু, খাসি ও অন্যান্য চর্বিযুক্ত খাবার, মসৃণ চাল, ময়দা, চা, কফি, সব ধরণের ভাজা খাবার যেমনঃ পরোটা, লুচি, চিপস ইত্যাদি ৫) নিয়মিত হাঁটাহাঁটি ও ব্যায়াম করুন ৬) কোন রোগের জন্য হয়ে থাকলে তার জন্য চিকিৎসা নিন৭) কোন ওষুধ সেবনের কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য হচ্ছে মনে হলে সে ব্যাপারে আপনার চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। কোষ্ঠকাঠিন্যে যা করা উচিৎ নয়ঃ ১) পায়খানার বেগ ধরলেও নানা অজুহাতে দেরি করা ২) নিয়মিত পায়খানা নরম করার বিভিন্ন রকমের ওষুধ সেবন ও ব্যবহার করা।আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও