প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। আপনার বয়স কত? আপনার কি এক চোখে ব্যথা, নাকি উভয় চোখে ব্যথা? আপনার চোখে কিছু পড়েছিল? আমাদের জানান। চোখের পাতার ওপর বা ভেতরের অংশে ব্যথা হতে পারে। চোখের পাতার ব্যথা সাধারণত চুলকানি ও জ্বালাপোড়ার কারণে হয়ে থাকে। চোখে বাইরে থেকে কিছু গেলে, ইনফেকশনের জন্য চোখ চুলকালে বা চোখের পাতার ওপর যে মেমব্রেনের আস্তরণ থাকে, তাতে প্রদাহ দেখা দিলে ব্যথা হয়। চোখের ভেতরের অংশে ব্যথা হলে এ ব্যথার মাত্রা খুব বেশি হয়। গুরুতর শারীরিক অসুস্থতার কারণেও অনেক সময় ব্যথা হতে পারে। এ ব্যথা দৃষ্টিশক্তির ওপর প্রভাব বিস্তার করলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। বিভিন্ন কারণে এ লক্ষণ দেখা যেতে পারে। যেমনঃ অ্যালার্জিজনিত কনজাঙ্কটিভাইটিস; ছানি; ক্যালাজিয়ন; কনজাঙ্কটিভাইটিস; কর্নিয়া ইনফেকশন; ডেঙ্গুজ্বর; দাঁতের য়রোগ; টাইফয়েড জ্বর,ক্ষীণদৃষ্টি; লেইশম্যানিয়াসিস বা কালাজ্বর; সিউডোটিউমার সেরেব্রি; প্রেসবায়োপিয়া; টেরিজিয়াম; ব্লাস্টোমাইকোসিস; ফ্যাট এমবলিজম; চ্যাগাস ডিজিজ; শ্যাংক্রয়েড; অ্যামব্লায়োপিয়া; ক্রনিক গ্লুকোমা; রেটিনাল ডিটাচমেন্ট ছাড়াও রয়েছে অসংখ্য কারণ। চোখে ব্যথা হলে প্রাথমিক চিকিৎসা হিসেবে এসব পন্থা অবলম্বন করে সহজেই নিরাময় করা যায়। তবে সমস্যা বেশি হলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। #  ঠাণ্ডা পানি ঃ কনজাংটাইভ বা চোখের সাদা অংশের প্রসারিত রক্তনালীগুলোর কারণে চোখ লাল হয়ে থাকে। ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দিয়ে চোখের এই যন্ত্রনাদায়ক রক্তনালীগুলো শিথিল করার মাধ্যমে লালভাব দূর করা যেতে পারে। এছাড়াও পরিষ্কার কাপড়ে বরফের টুকরা নিয়ে আক্রান্ত চোখে ব্যবহার করলেও উপকার পাওয়া যায়। # অ্যাপল সাইডার ভিনিগার ঃ একই পরিমাণ পানি ও অ্যাপল সাইডার ভিণিগার মিশিয়ে তুলার বলের সাহায্যে চোখের পাতায় মাখিয়ে নিতে হবে। অ্যাপল সাইডার ভিনিগারের মাইক্রোবায়াল উপাদান ব্যকটেরিয়া ধ্বংস করতে সহায়ক। #  ঠাণ্ডা চামচ ঃ বরফশীতল পানিতে দুতিন জোড়া চামচ ডুবিয়ে রাখে সেটা চোখের উপর ধরে রাখুন। চামচের ঠাণ্ডাভাব ফুরিয়ে গেলে চামচ পরিবর্তন করে নিতে হবে। #  শসা ঃ চোখের নিচের কালোদাগ ও ফোলাভাব দূর করতে সহায়ক এটা সবারই জানা। পাশাপাশি রূপচর্চায় যেভাবে ব্যবহার করা হয় সেভাবে ব্যবহার করলে চোখের ব্যথাও দূর করে এই সবজি। #  গ্রিন টি ব্যাগ ঃ চোখ ব্যথার সবচাইতে যন্ত্রনাদায়ক উপসর্গগুলো থেকে মুক্তি দেয় গ্রিন টি’য়ের অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস এবং অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল উপাদান। এক কাপ গরম পানিতে গ্রিন টি ব্যাগ ডুবিয়ে রাথতে হবে যতক্ষণ না গরম পানি ঘরের তাপমাত্রায় আসে। পরে কাপটি কয়েক মিনিট ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে নিতে হবে। তারপর টি ব্যাগ থেকে বাড়তি পানি বের করে নিয়ে টি ব্যাগটি বন্ধ চোখের উপর রাখতে হবে। #  অ্যালোভেরা জেল ঃ জ্বলা, প্রদাহ ও আরও অনেকরকম ত্বকের সমস্যা দূর করতে সহায়ক অ্যালোভেরা জেল। চোখ ব্যথার উপসর্গ দূর করতেও এটা কার্যকর। পাতা থেকে জেল বের করে তা কয়েক মিনিট ফ্রিজে ঠাণ্ডা করে চোখের পাতায় মাখতে পারেন। #  গোলাপ জল ঃ একটি তুলার বল দিয়ে বন্ধ চোখে গোলাপ জল মাখানোর মাধ্যমে চোখ ব্যথার উপসর্গ থেকে মুক্তি পেতে পারেন। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোন প্রশ্ন থাকলে, মায়া আপাকে জানাবেন, রয়েছে পাশে সবসময়, মায়া আপা ।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও