প্রিয় গ্রাহক, আপনার অসুবিধার কথা শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ। আপনি নিজের ব্যাপারে সচেতন হয়েছেন এবং উদ্দোগী হয়েছেন এটি খুবই প্রশংসনীয়। আপনি লিখেছেন মানসিক চাপে ভুুগছেন। কি নিয়ে চাপ অনুভব করছেন জানাবেন কি? গ্রাহক, আমরা কেমন অনুভব করব তা নির্ভর করে আমাদের চিন্তার ধরণের উপর। আপনার কি ধরণের চিন্তা আসে তা বিস্তারিত জানাবেন কি? যদি এমন দেখা যায় যে একই ধরণের চিন্তা বারবার করা হচ্ছে সেক্ষেত্রে নিজেকে অন্য কোন কাজের মধ্যে রেখে ডিস্ট্রাকশন করতে পারেন। মাইন্ডফুলনেস প্র্যাক্টিস করতে পারেন। যেমনঃ সে মুহূর্তে যে কাজটি করছেন তা সচেতনভাবে পর্যবেক্ষণ করা। যে খাবারটি খাচ্ছেন তার স্বাদ, ঘ্রাণের দিকে মনোযোগ দিয়ে খাওয়া, হাত দিয়ে কাজ করার সময় স্পর্শ বোঝার চেষ্টা করা। সামনের জিনিসপত্রের কালার পর্যবেক্ষণ করা ইত্যাদি। এছাড়া আপনি যে নিঃশ্বাস নিচ্ছেন এবং ছাড়ছেন সেটিও খেয়াল করতে পারেন। নিঃশ্বাসের ব্যায়াম করতে পারেন ( যখন আমরা দুশ্চিন্তা করি আমাদের শ্বাস-প্রশ্বাসের স্বাভাবিক গতি ব্যহত হয়। ফলে শরীর ও মনে অস্থিরতা অনুভব করি। যেভাবে করবেন - বুক ভরে শ্বাস নিন, কয়েক সেকেন্ড ধরে রাখার চেষ্টা করুন এরপর ধীরে ধীরে শ্বাস ছাড়ুন।এভাবে কয়েক মিনিট অনুশীলন করুন । ) যখন আমরা একা থাকি তখন আমাদের নেতিবাচক চিন্তা গুলো বেশি আসে। তাই প্রতিদিন বিশ্বস্ত বন্ধুবান্ধব, পরিচিত মানুষ, পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলুন। সম্ভব হলে সরাসরি কথা বলার চেষ্টা করুন। দৈনন্দিন জীবনের একটি সাধারণ রুটিন রাখার চেষ্টা করুন। যদিও আপনার অনুভূতির কারণে নিয়ন্ত্রণহীন মনে হতে পারে তবুও চেষ্টা করুন যতটা সম্ভব ধাপে ধাপে কাজ ভাগ করে নিয়ে রুটিন স্বাভাবিক রাখার। প্রতিদিন রোদে বা প্রাকৃতিক পরিবেশে অন্তত ৩০ মিনিট সময় ধরে থাকার চেষ্টা করুন। এছাড়া ভাল থাকার জন্য যা যা করতে পারেন - সময়মতো পর্যাপ্ত পুষ্টিকর খাবার খাওয়া, পর্যাপ্ত পানি পান করা, রাতে পর্যাপ্ত ঘুমানো, প্রতিদিন নিজের ভালো লাগার ছোট ছোট কাজ করার অভ্যাস করা। আপনি লিখেছেন থার্ড আই অন করতে চান। এব্যাপারে বিস্তারিত জানালে সহযোগীতা করতে সুবিধা হবে। আশা করি আপনাকে কিছুটা সহযোগীতা করতে পেরেছি। বিস্তারিত তথ্য জানিয়ে আপনি পরবর্তীতে সহযোগীতা পেতে পারেন। নতুন কোন প্রশ্ন থাকলে করতে পারেন। মায়া আছে আপনার পাশে।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও