ধন্যবাদ প্রিয় গ্রাহক। গ্রাহক,  দুই অস্থির মাঝখানে অবস্থিত সাইনোভিয়াল ফ্লুইড নামে এক ধরনের জেলির পরিমাণ কমে গেলে দুই হারের মধ্যকার ঘর্ষণের কারণে  এ ধরনের আওয়াজ লক্ষ্য করতে পারেন তবে এটি সাধারণত 40 বছর বয়সের পরে হয়ে থাকে তবে যাদের ওজন বেশি অথবা যাদের পায়ের ওপর বেশি প্রেসার পরে তাদের কম বয়সে এই সমস্যা হতে পারে। এক্ষেত্রে একজন অর্থপেডিক ডাক্তার দেখিয়ে সাইনোভিয়াল ফ্লুইড বৃদ্ধিকারক ওষুধসহ  প্রয়োজনীয় ওষুধ গ্রহণ করতে হবে। এছাড়া ক্যালসিয়ামের অভাব হলেও এ ধরনের সমস্যা লক্ষ্য করতে পারেন সেজন্য প্রতিদিন অন্তত এক গ্লাস করে দুধ গ্রহণ করার চেষ্টা করবেন সেই সাথে প্রতিদিন সকালে সূর্যের আলো স্কিনে লাগানোর চেষ্টা করবেন এতে করে শরীরে ভিটামিন ডি তৈরি হতে সাহায্য করবে।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও