প্রিয় গ্রাহক, আপনি আপনার অনুভুতি নিয়ে সচেতন হয়ে আমাকে প্রশ্ন করেছেন এজন্য ধন্যবাদ।  যৌনতা একটি মানসিক অনুভূতি। সেক্স মানুষের ক্ষুধার মতই একটি মৌলিক চাহিদা। কাজেই সেক্সের চাহিদা থাকাই স্বাভাবিক।এটা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা কারন আমাদের প্রত্যেকেরই যৌবিক চাহিদা রয়েছে।গ্রাহক,যৌনসম্পর্ক স্থাপনের ক্ষেত্রে দুইজনের সমান ইচ্ছা ও সম্মতি প্রয়োজন। তাই আপনার গার্লফ্রেন্ড এর মতামত কি হতে পারে সেটা নিয়ে ভেবে দেখতে পারেন। যৌন সম্পর্ক যে কোন রিলেশন এর সবচেয়ে বিশ্বাসযোগ্য ও ঘনিষ্ঠতম মুহুর্ত। তাই এর জন্য পরস্পরের প্রতি বিশ্বাস, ভরসা ও সম্মতি থাকা খুব প্রয়োজন। তাছাড়া সাইকোলজি অনুযায়ী মেয়েরা ইমোশন দ্বারা ফোকাসড বেশি হয়  তাই ঘনিষ্ঠতার ক্ষেত্রে মেয়েরা স্বাভাবিক ভাবেই একটু দ্বিধায় ভুগে থাকে। আর একটা মেয়ের সম্পর্কের ও ভালোবাসার মানুষের প্রতি বিশ্বাস ও সম্মান অনেক খানি প্রভাবিত হয় এই ঘনিষ্ঠতার প্রতি সম্মতি দ্বারা। এই ব্যাপারে জোর করা হলে আপনার প্রতি তার মনোভাব কেমনভাবে প্রভাবিত হতে পারে একটু ভেবে দেখতে পারেন। তাছাড়া বিবাহ বহির্ভূত কোন সম্পর্কের বিভিন্ন নেতিবাচক দিক আছে। সেইরকম কোন পরিস্থিতি হলে আপনারা কিভাবে ম্যানেজ করবেন সেটা নিয়েও ভেবে দেখতে পারেন।আশা করছি আমি আপনার প্রশ্নের উত্তর দিতে পেরেছি।আর কোন প্রশ্ন থাকলে মায়াকে জানাতে পারেন।আপনার পাশে আছে মায়া সব সময়।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও